চোখ দেখেই বুঝে নিন অসুখের লক্ষণ

নতুন টিপস ও লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক করুন| আরো পড়তে এখানে ক্লিক করুন| আপনি লিখতে চাইলে এখানে রেজিস্টার করুন | Want to Read and Write in English Language Click Here

চোখ দেখেই বুঝে নিন অসুখের লক্ষণ

আমাদের পঞ্চ ইন্দ্রিয়র অন্যতম ইন্দ্রিয় হল চোখ। আপনি কি জানেন, চোখ দেখে আপনার স্বাস্থ্যের খুঁটিনাটিও বলে দেওয়া যেতে পারে! চিকিৎসকেরা এই কারণেই রোগ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে রোগীর চোখ পরীক্ষা করেন। আপনিও চোখ দেখে চিনে নিতে পারেন শরীরে বাসা বাঁধা ৪টি রোগের লক্ষণ। জানতে চান কী ভাবে? আসুন জেনে নেয়া যাক:

  1. আপনার চোখ কি খুব ঘন ঘন শুকিয়ে যাচ্ছে এবং আলোয় তাকাতে কষ্ট হচ্ছে? চোখের পাতা ফেলার সময় আপনি কি কখনও লক্ষ্য করেছেন চোখের শুষ্কতা? যদি এমন কিছু লক্ষ্য করে থাকেন তাহলে এখই সতর্ক হয়ে যান। কারণ এটি হতে পারে অটোইমিউন রোগ ‘Sjogren’। এই রোগে আপনার দেহের শ্বেত রক্ত কণিকা ময়েসচার উৎপাদনের গ্ল্যান্ডকে ক্ষতিগ্রস্ত করে ফেলে। ফলে চোখ বার বার শুকিয়ে যায় বা শুষ্ক হয়ে উঠে। এই সমস্যায় অবহেলা না করে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিৎ।
  2. ভাল করে লক্ষ্য করে দেখুন তো আপনার চোখ কি রক্ত বর্ণের? অর্থাৎ, চোখের সাদা অংশের শিরাগুলোয় রক্তের লালচে ভাব দেখতে পাচ্ছেন? যদি এমনটা হয়, তাহলে বুঝতে হবে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে বা বেড়েছে। এটি তারই লক্ষণ। এই ধরণের লক্ষণ দেখা দিলে বুঝে নিন আপনি মারাত্মক উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছেন যার কারণে স্ট্রোক বা হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কমাতে সোডিয়াম সমৃদ্ধ খাবার কমান এবং পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খান। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
  3. এই লক্ষণটি সম্পর্কে আমরা প্রায় সকলেই কম-বেশি অবগত। চোখের সাদা অংশ হলদেটে হয়ে যাওয়া ‘জন্ডিস’ রোগের লক্ষণ। জন্ডিস হলে আমাদের লিভার সঠিক ভাবে রক্তের লাল কণিকা উৎপন্ন করতে পারে না। এর ফলে দেহের রক্তে বিলিরুবিনের মাত্রা বেড়ে যায়। যার ফলে চোখ হলদেটে বর্ণ ধারণ করে। এ ক্ষেত্রে অবহেলা করলে জন্ডিস রোগটি মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। তাই এই সমস্যা অবহেলা না করে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিৎ।
  4. চোখ মাঝে মাঝে চুলকানো তেমন মারাত্মক কিছু নয়। তবে যদি ঘন ঘন চোখ চুলকায় তাহলে তা অবশ্যই চিন্তার বিষয়। চোখ চুলকানো, শরীরে মারাত্মক অ্যালার্জির প্রকোপের লক্ষণ। শরীর অতিরিক্ত হিস্টামাইন উৎপন্ন করে, যার কারণে অতিরিক্ত চোখ চুলকানোর সমস্যা দেখা দেয়। শুধু চোখ নয় দ্রুত নিরাময় করতে না পারলে ক্রমশ নাক, গলা এবং চামড়াতেও ছড়াতে পারে অতিরিক্ত চুলকোনির সমস্যা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*