সস্তায় স্মার্টফোন আনতে Itel এর সঙ্গে Reliance Jio

সস্তায় স্মার্টফোন আনতে Itel এর সঙ্গে Reliance Jio

ভারতের বাজারে নিজের একাধিপত্য কায়েম করার জন্য যেন মরিয়া হয়ে উঠেছে Reliance Jio! ইতিমধ্যেই আমরা দেখেছি যে, চলতি বছরে এই শীর্ষস্থানীয় টেলকোটি তার ইউজারবেস ৫০০ মিলিয়নে নিয়ে যেতে দৃঢ় সংকল্প নিয়েছে এবং এই কারণে এটি একাধিক পদক্ষেপও নিয়েছে। কিন্তু মুকেশ আম্বানির মালিকানাধীন সংস্থাটি যে আদতে দেশের টেলিকম সেক্টরের পাশাপাশি, মোবাইল বাজারেও নিজের বিশেষ জায়গা তৈরির জন্য কোমর বাঁধছে – সে বিষয়টিও আস্তে আস্তে নিশ্চিত রূপ পাচ্ছে।

আসলে Jio ভারতের ফিচার ফোন সেকশনে ব্যাপক পরিবর্তন এনে তার বেশির ভাগটা নিজের করায়ত্ত করার পর, গতবছর Google বা Facebook-এর মত গ্লোবাল টেক জায়ান্ট কোম্পানির সাথে হাত মিলিয়েছে নতুন স্মার্টফোন আনার লক্ষ্যে। তাছাড়া সংস্থাটি স্বল্প মূল্যের স্মার্টফোন চালু করার জন্য জনপ্রিয় চিপসেট নির্মাতা Qualcomm-এর সাথে অংশীদারিত্ব করবে, একথাও আগেই শোনা গেছে। সেক্ষেত্রে এবার, স্মার্টফোন বাজারে নিজের আগ্রাসী পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করার জন্য Itel নামক মোবাইল ব্র্যান্ডের সাথে Jio পার্টনারশিপ করতে চলেছে – এমনটাই বলছে সাম্প্রতিক রিপোর্ট।

91 Mobiles-এর মতে, Reliance Jio, ভারতে স্বল্প মূল্যের নতুন স্মার্টফোন বাজারে আনতে চীনা ব্র্যান্ড Itel-এর সাথে একচেটিয়া অংশীদারিত্ব করার পরিকল্পনা করছে। দুটি সংস্থা আগামী মাসে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করবে এবং যৌথভাবে অত্যন্ত সাশ্রয়ী মূল্যের দামের স্মার্টফোন বাজারে এনে, বিশেষত দেশের গ্রামীণ অঞ্চলের ইউজারদের (যারা এখনো ফিচার ফোন ব্যবহার করেন) আকর্ষিত করার চেষ্টা করবে বলে মনে হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, Jio কয়েক মাস আগেই ‘2G মুক্ত ভারত’ নামে একটি কর্মসূচির কথা জানিয়েছিল, যেখানে সংস্থা কর্তৃক দেশের 2G ইউজারদের সস্তায় 4G নেটওয়ার্ক উপভোগ করার এবং ফিচার ফোন থেকে স্মার্টফোন ব্যবহারে উত্‍সাহী করে তোলার পরিকল্পনা প্রকাশিত হয়েছিল। তাই আলোচ্য পদক্ষেপটি Jio-র এই পরিকল্পনার অংশ বলেই মনে হচ্ছে। সেক্ষেত্রে আসন্ন স্মার্টফোনটির স্পেসিফিকেশন বা প্রবর্তনের তারিখ সম্পর্কে কোনো স্পষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে ফোনটি লঞ্চ হওয়ার পর Reliance-এর অনলাইন এবং অফলাইন স্টোরের মাধ্যমে বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উল্লেখ্য, Jio এই মুহূর্তে বাজারে JioPhone এবং JioPhone 2 নামে দুটি 4G ফিচার ফোন সরবরাহ করে। এই ফোনগুলিতে তুলনামূলক কম খরচে 4G নেটওয়ার্কের সমস্ত সুবিধা অ্যাক্সেস করা যায় এবং KaiOS-এর সাহায্যে চালিত হ্যান্ডসেটগুলি Google, Facebook, WhatsApp-এর পাশাপাশি সমস্ত Jio অ্যাপ্লিকেশনগুলি সাপোর্ট করে।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.