| |

আগস্টে শুরু হতে চলেছে Airtel 5g পরিষেবা

Airtel 5g পরিষেবা

5g Airtel:

5G স্পেকট্রাম নিলাম সবেমাত্র শেষ হয়েছে। আগস্ট মাসের শেষের দিকে Airtel 5g পরিষেবা শুরু হতে চলেছে।  এমনটা সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে। বাড়িতে Airtel পরিষেবা কবে পৌঁছাবে? জেনে নিন

সবে মাত্র ভারতে 5G স্পেকট্রাম নিলাম শেষ হয়েছে। ইতিমধ্যেই দেশে 5g পরিষেবা চালু করার কথা জানিয়েছেন Airtel। Nokia , Samsung ও Ericsson এই তিনটি সংস্থা একজোট হয়ে গোটা দেশে 5G পরিকাঠামো শুরু করবে গুরুগ্রামের সংস্থাটি। 

সংবাদ মাধ্যমে Airtel তরফে জানানো হয়েছে 2024 সালে মার্চ মাসের মধ্যে পুরো দেশে  5G নেটওয়ার্ক শুরু হয়ে যাবে। সংস্থা তরফ থেকে আরো জানানো হয়েছে ছোট-বড় প্রায় 5,000 শহরে পৌঁছে যাবে 5G নেটওয়ার্ক।

Airte 5G

ম্যানেজিং ডিরেক্টর গোপাল ভিত্তান জানিয়েছেন অগাস্টেই  Airtel 5G লঞ্চের পরিকল্পনা রয়েছে। Airtel 5g পরিষেবা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পুরো দেশে ছড়িয়ে দেয়া হবে। Airtel কোম্পানি তরফ থেকে ইতিমধ্যে প্রায় 5,000 শহরে 5g পরিষেবা শুরু করার পরিকল্পনা তৈরি হয়ে গিয়েছে। গোপাল ভিত্তান জানিয়েছেন  “ইতিহাসের অন্যতম বৃহত্তম নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ হতে চলেছে”। 

Nokia ও Ericsson সঙ্গে হাত মিলিয়ে দেশে মোবাইল নেটওয়ার্ক পরিকাঠামো বিস্তারের কাজ করেছে Airtel।Airtel 5G পরিষেবা আরও উন্নত করতে হাত বাড়িয়েছেন স্যামসাং।  5G নিলামে মোট 19867.8 MHZ স্পেকট্রাম অধিগ্রহণ করেছে করেছে Airtel।  900 MHz, 1800 MHz, 2100 MHz, 3300 MHz ও 26 GHz ফ্রিকোয়েন্সিগুলি রয়েছে এই তালিকায়। 

কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী নিলাম শেষ জানিয়েছিলেন 2022 সালের অক্টোবরে ভারতে 5G পরিষেবা শুরু হয়ে যাবে।

Airte 5G

Airtel সংস্থার তরফ থেকে 5G পরিষেবা  ঘোষোণা করতে পেরে আনন্দিত যে 2022 সালের অগাস্টেই দেশে 5G  নেটওয়ার্ক শুরু করে দেবে Airtel। প্রয়োজনীয় চুক্তি ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। Airtel 5G নেটওয়ার্ক প্রসারে আমরা বিশ্বের একাধিক কোম্পানির সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করব। 5G নেটওয়ার্ক দেশের ডিজিটাল অর্থনীতির প্রসার সাহায্য করবে এমনটাই মনে করছেন ।

Airtel 5G স্পেকট্রাম নিলামে প্রায় 43,084 কোটি টাকা খরচ করেছে। sub-6GHz 5G নেটওয়ার্কে 900Mhz, 1,800MHz, 2,100Mhz ও 3,300MHz ব্যান্ডগুলো কিনেছে  Airtel সংস্থাটি। এছাড়াও  mmWave -এ 26GHz ব্যান্ড দুটি আরো কিনেছেন Airtel। দুর্দান্ত ইন্টারনেট স্পিডের সঙ্গেই পাওয়া যাবে কম ল্যাটেন্সি। একসঙ্গে অনেক ডেটা হ্যান্ডল করা যাবে 5G নেটওয়ার্কে। যা ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে সম্পূর্ণ বদলে দেবে।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.