|

তেজপাতার গুণাবলী জেনে নিন

তেজপাতার উপকারিতা

খাবারের স্বাদ ও সুগন্ধে বৃদ্ধিতে তেজপাতা জুড়ি মেলা ভার। শুধু স্বাদ ও সুগন্ধের জন্য তেজপাতা রয়েছে নানান উপকারিতা। মধুমেহ রোগে ভুগছেন মানুষের সংখ্যা অনেক এমনটা যেন জান বিশেষজ্ঞরা। এই মধুমেহ নিয়ন্ত্রণে রাখতে তেজপাতার জুড়ি মেলা ভার।  

তেজপাতার উপকারিতা 

  • তেজপাতার মধ্যে রয়েছে পিনেনে ও সাইনিয়ল এবং এসেনশিয়াল অয়েল ও সাইকোঅ্যাকটিভ পদার্থ। শরীরকে নানা জটিল রোগের হাত থেকে বাঁচাতে যে যে উপাদানের প্রয়োজন, তার সবই উপস্থিত রয়েছে তেজ পাতায়।
  • বিশেষজ্ঞদের মতে যাদের হজমশক্তি সমস্যা আছে তাদের জন্য তেজপাতা খুব উপকারী । মধুমেহ কিংবা হজম শক্তি বাড়াতে তেজপাতা খুব ভালো এমনটা নয়, এছাড়াও তেজপাতা রয়েছে হাজারো গুণাবলী। 
  • রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভরসা রাখুন তেজ পাতার উপর “এমনটাই জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা”। 
  • অতিরিক্ত তেলযুক্ত খাবার উপকারী কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়িয়ে থাকে তেজপাতা  ক্ষতিকারক কলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে বিভিন্ন হূদেরাগের ঝুঁকি কমায়। 
  • বিশেষজ্ঞরা আরও জানিয়েছেন তেজপাতার ধোয়াও  অত্যন্ত উপকারী যা আমাদের দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।  

প্রাথমিক চিকিৎসা তেজপাতা 

  1. ফাংগাল ইনফেকশন যেমন কাটা ,ছড়্‌  ঘা কমানোর জন্য তেজপাতা অত্যন্ত উপকারী।
  2. এছাড়া দৈনন্দিন খাবারের তালিকা তেজপাতা রাখলে শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেয়। 
  3. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে “প্রত্যেকদিন গরম জলে কয়েকটি তেজ পাতা ফুটিয়ে নিন সেই জল ঠান্ডা করে প্রত্যেকদিন একগ্লাস করে খান”। দেখবেন উপকার পাবেন। 

প্রাচীনকাল থেকেই তেজপাতা নিরাময়কারী ও স্বাস্থ্যকর ভেষজ পাতা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে কেবল খেলে বা ব্যবহার করলেই হবে না, পোড়ালেও উপকার পাওয়া যায়। প্রাচীন গ্রিক ও রোমানরা তেজপাতাকে পবিত্র ওষুধ বলত।

খুশকি ও চুল পড়ে যাওয়া নিয়ে বিপাকে আছেন? চুলের যত্নে তেজপাতায় রয়েছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। কয়েকটি তেজপাতা জল সেদ্ধ করুন। কিছুক্ষণ ঠাণ্ডা হতে দিন। এবার সেই জল দিয়ে চুল ও স্ক্যাল্প ধুয়ে ফেলুন। অবশ্যই শ্যাম্পু করার পর এটি করবেন। মাথার ত্বক চুলকাচ্ছে? তেজপাতা বেটে নারকেল তেলের সঙ্গে মেশান। স্ক্যাল্পে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.